বাংলাদেশের সবচেয়ে ছোট জেলা কোনটি (প্রতিষ্ঠা সাল, আয়তন, জনসংখ্যা)

বাংলাদেশের সকল জেলার আয়তন ও বৈচিত্র এক জেলা থেকে অন্য জেলা সম্পূর্ণ আলাদা। আজকের এই আর্টিকেলে আলোচনা করা হবে সকল জেলার মধ্যে বাংলাদেশের সবচেয়ে ছোট জেলা কোনটি সেই সম্পর্কে। বাংলাদেশের ছোট জেলা কোনটি সে সম্পর্কে জানার পাশাপাশি আয়তন, প্রতিষ্ঠিত সাল, উপজেলা, থানা ইত্যাদি জানতে পারবেন। এ সকল বিষয়ে জানতে হলে সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি ধৈর্য্য ধরে পড়তে হবে। বেশি কথা না বাড়িয়ে চলুন আলোচনা করে ফেলি আজকের মূল বিষয় সম্পর্কে।

আরো পড়ুনঃ 

Contents

বাংলাদেশের সবচেয়ে ছোট জেলা কোনটি

আয়তনের দিক দিয়ে বাংলাদেশের সবচেয়ে ছোট জেলা হচ্ছে নারায়ণগঞ্জ। ১৯৮৪ সালে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিষ্ঠিত হয়। ঢাকা বিভাগের অন্তর্গত নারায়ণগঞ্জ জেলা। নারায়ণগঞ্জ জেলার মোট আয়তন হচ্ছে ৬৮৩.১৪ বর্গ কি.মি. বা ২৬৩.৭৬ বর্গ মাইল। এই জেলায় উপজেলা ৫ টি, থানা ৭ টি, ইউনিয়ন ৩৯ টি, পৌরসভা ১ টি রয়েছে। নারায়ণগঞ্জ জেলার মোট জনসংখ্যা হচ্ছে ২৯,৪৮,২১৭ জন এবং জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গ কি.মি. ৪,৩০০ জন বাস করে।

  • প্রতিষ্ঠা সালঃ ১৯৮৪ সালে
  • আয়তনঃ ৬৮৩.১৪ বর্গ কি.মি.
  • উপজেলাঃ ৫ টি
  • থানাঃ ৭ টি
  • ইউনিয়নঃ ৩৯ টি
  • পৌরসভাঃ ১ টি
  • জনসংখ্যাঃ ২৯,৪৮,২১৭ জন

নারায়ণগঞ্জ জেলার নামকরণ

এখন বিস্তারিত আলোচনা করা যাক নারায়ণগঞ্জ জেলার নামকরণ সম্পর্কে। ১৯৬৬ সালে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির নিকট থেকে এই অঞ্চলের মালিকানা লাভ করেছিলেন হিন্দু সম্প্রদায়ের ধর্মীয় নেতা বিকন লাল পান্ডে। যিনি অধিক পরিচিত ছিলেন বেণুর ঠাকুর বা লক্ষী নারায়ণ ঠাকুর নামে। প্রভু নারায়ণের সেবার জন্য তিনি শীতলক্ষ্যা নদীর পাশের মার্কেটকে দেবোত্তর সম্পতি নামে অভিহিত করেন। পরে এই স্থানটির নাম রাখা হয় নারায়ণগঞ্জ।

নারায়ণগঞ্জ জেলার ইতিহাস

উপরের আলোচনা থেকে বাংলাদেশের সবচেয়ে ছোট জেলা কোনটি সে বিষয়ে জানতে পেরেছেন। এখন আলোচনা করবো বাংলাদেশের ছোট জেলা নারায়ণগঞ্জের ইতিহাস সম্পর্কে –

  • ১৮৬৬ সালে নারায়ণগঞ্জ ডাকঘর প্রতিষ্ঠা করা হয়।
  • ১৮৭৬ সালে নারায়ণগঞ্জ পৌরসভা প্রতিষ্ঠিত হয়।
  • ১৮৭৭ সালে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ টেলিগ্রাম পরিসেবা চালু করা হয়।
  • ১৮৮২ সালে ব্যাংক অব বেঙ্গল প্রথম টেলিফোন সেবা চালু করা হয়।
  • ১৮৮৫ সালে নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করা হয়।
  • ১৯৩১ সালে নারায়ণগঞ্জ শহরে বৈদ্যুতিক সংযোগ স্থাপন করা হয়।
  • ২০১১ সালে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠা করা হয়।

নারায়ণগঞ্জ জেলার দর্শনীয় স্থানসমূহ

এই আর্টিকেলের সাহায্যে বাংলাদেশের ছোট জেলা নারায়ণগঞ্জ সম্পর্কে অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে জানতে পেরেছেন। এখন বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক নারায়ণগঞ্জ জেলার কিছু দর্শনীয় স্থানের নাম সম্পর্কে –
সোনারগাঁও জাদুঘর, পানাম নগর, জিন্দা পার্ক, মুড়াপাড়া জমিদার বাড়ি, সুবর্ণগ্রাম অ্যামিউজমেন্ট পার্ক এন্ড রিসোর্ট, হাজীগঞ্জ দুর্গ, সাতগ্রাম জমিদার বাড়ি, বারদী লোকনাথ আশ্রম, মেরি এন্ডারসন, সোনাকান্দা দুর্গ, বাংলার তাজমহল, সায়রা গার্ডেন রিসোর্ট, গোয়ালদি মজজিদ উল্লেখযোগ্য।

সর্বশেষঃ আশা করছি এই আর্টিকেলের সাহায্যে বাংলাদেশের সবচেয়ে ছোট জেলা কোনটি, সবচেয়ে ছোট জেলা কোনটি, বাংলাদেশের ছোট জেলা কোনটি, বাংলাদেশের ছোট জেলা সকল প্রশ্নের উত্তর পেয়েছেন। এছাড়া এ বিষয়ে যদি আপনার কোনো ধরনের মতামত থাকে তাহলে কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন। ধন্যবাদ।।

তথ্যসূত্রঃ ইউকিপিডিয়া