এলোভেরার উপকারিতা | এলোভেরা দিয়ে রূপচর্চা | এলোভেরা জেল

আপনি কি এলোভেরার উপকারিতা সম্পর্কে জানতে আগ্রহী? যদি আগ্রহী হয়ে থাকেন তাহলে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য। এলোভেরা খুবি উপকারি একটি রসালো উদ্ভিদ। যা এলোভেরার রসালো অংশ ব্যবহার করলে বিভিন্ন ধরনের উপকারিতা পাওয়া যায়। এলোভেরার রসালো অংশ খাওয়া যেমন শরীরের পক্ষে উপকারি তেমনি সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। প্রতিদিন এলোভেরা খেলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি সহ বিভিন্ন উপকারিতা পাওয়া যায়। 

এলোভেরা খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা এবং এলোভেরা দিয়ে রূপচর্চা কিভাবে করা যায় সে সম্পর্কে জানতে পারবেন আজকের এই আর্টিকেলের সাহায্যে। এলোভেরার যাদুকরী উপকারিতা সম্পর্কে জানার জন্য সঙ্গে থাকুন। 

এলোভেরার উপকারিতা

এলোভেরাতে অ্যামাইনো এসিড, খনিজ পদার্থ, ভিটামিন-এ, ভিটামিন-বি, ভিটামিন-সি, ভিটামিন-ই সহ বিভিন্ন উপাদান রয়েছে। যা মানব শরীরের জন্য এসব উপাদান অত্যন্ত উপকারি। নিয়মিত এলোভেরা খেলে এসব কার্যকারীতা পাওয়া যায়। এলোভেরা নিয়মিত খেলে রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রণ, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃ্দ্ধি, ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি সহ নানা ধরনের উপকারিতা পাওয়া যায়। চলুন জেনে নেয়া যাক এলোভেরার উপকারিতা সমূহ সম্পর্কে।

পরিপাকতন্ত্র সতেজ রাখে
এলোভেরা দেহের পরিপাকতন্ত্র সতেজ রাখতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। যা কোনো খাবার খাওয়ার পর সহজে পরিপাক হয়। অর্থাৎ হজম শক্তি বৃদ্ধি করে। 

কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়
নিয়মিত এলোভেরা খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব। প্রতিদিন এলোভেরার রসালো অংশের রস ১-২ চামচ খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য হওয়া রোধ করে। 

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়
এলোভেরার রসালো অংশ অথবা এলোভেরার রসালো রসের সাথে মধু মিশিয়ে মুখে লাগালে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়। সেই সাথে ত্বকের দাগ দূর করে। এতে ত্বকের সৌন্দর্য বহুগুণে বেড়ে যায়।

ডায়রিয়া সারাতে কার্যকর
ডায়রিয়া সারাতে এলোভেরা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে। এলোভেরার রস মধুর সাথে মিশিয়ে খেলে ডায়রিয়া সারাতে সাহায্য করে। 

দেহের ওজন নিয়ন্ত্রণ
সাধারণত বিভিন্ন ধরনের খাবার খাওয়ার ফলে দেহের ওজন বৃদ্ধি পায়। নিয়মিত এলোভেরা খেলে দেহের ওজন বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণ করতে কার্যকর ভূমিকা রাখে।

এলাচ এর উপকারিতা (হজম শক্তি, দুর্গন্ধ দূর, রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ) 

ভাইরাসের সাথে লড়াই
নিয়মিত এলোভেরার রস খেলে সাদা ব্লাড বাড়াতে সাহায্য করে। আর এই সাদা ব্লাড ভাইরাসের আক্রমণ রোধ করতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে। 

দেহের ক্ষতিকর পদার্থ দূর
মানব শরীরে বিভিন্ন ধরনের ক্ষতিকর পদার্থের উপস্থিতি থাকে। নিয়মিত এলোভেরা খেলে এই ক্ষতিকর পদার্থ দূর করতে সাহায্য করে।

মাথার খুশকি দূর
এলোভেরার রসালো অংশ চুলের গোড়ায় লাগালে মাথার খুশকি দূর করে। সেই সাথে খুশকি দূর করার পাশাপাশি চুড়ের গোড়া মজবুত হয়। 

যকৃতের ক্রিয়াবিদ বৃ্দ্ধি
এলোভেরা যকৃতের ক্রিয়াবিদ বৃদ্ধি করতে অত্যন্ত সহায়ক হিসেবে কাজ করে। প্রতিদিন এলোভেরার রস ১-২ চামচ খেলে যকৃতের ক্রিয়া শক্তি বৃদ্ধি পায়। 

নতুন কোষ তৈরি
দেহে নতুন কোষ তৈরি করতে এলোভেরা যাদুকরী ভূমিকা রাখে। এতে দীর্ঘ সময় তারুণ্য ধরে রাখতে সাহায্য করে। 

পেটের মেদ কমায়
সাধারণত বিভিন্ন ধরনের খাবার খাওয়ার ফলে পেটের মেদ বৃদ্ধি পায়। এসব মেদ কমাতে এলোভেরা দারুণ কার্যকর। 

নতুন চুল গজাতে কার্যকর
এলোভেরার রস মাথার তালুতে ঘষে ঘষে লাগিয়ে ১-২ ঘণ্টা রাখলে দ্রুত নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে। এছাড়া চুলের গোড়া অনেক বেশি মজবুত হয়। 

এলোভেরার উপকারিতা এলোভেরা দিয়ে রূপচর্চা এলোভেরা জেল

এলোভেরা খাওয়ার উপকারিতা

সঠিক নিয়মে এলোভেরা নিয়মিত খেলে এর গুনগত মান পাওয়া সম্ভব। প্রতিদিন খালি পেতে ১-২ চামচ এলোভেরার রস খেলে বেশি উপকারিতা পাওয়া যায়। এছাড়া এলোভেরার জুস খাওয়া যেতে পারে। এলোভেরার উপকারিতা পেতে হলে নিয়মিত খাওয়ার অভ্যাস করতে হবে। 

এলোভেরা রসের সাথে মধু মিশিয়ে খাওয়া যেতে পারে। এতে এলোভেরা এবং মধুর মিশ্রণে গুণগত মান আরো বেশি বৃদ্ধি পায়। 

এলোভেরা দিয়ে রূপচর্চা

রূপচর্চার জন্য এলোভেরা অত্যন্ত কার্যকরী। প্রতিদিন এলোভেরার রস মুখে লাগালে ত্বকের উজ্জ্বলতা দ্রুত বৃদ্ধি পায়। এলোভেরা ত্বকের মৃত কোষকে সতেজ করে তোলে। এছাড়া নতুন কোষ তৈরিতে কার্যকরী ভূমিকা রাখে। 

যারা প্রাকৃতিক উপায়ে রূপচর্চা করতে বেশি পছন্দ করে তাদের জন্য এলোভেরা অত্যন্ত সহায়ক। তারা খুব সহজে এলোভেরা দিয়ে রূপচর্চা করতে পারবেন।

ড্রাগন ফলের উপকারিতা ও অপকারিতা | ড্রাগন ফল খাওয়ার নিয়ম

এলোভেরা দিয়ে ফর্সা হওয়ার উপায়

প্রতিদিন এলোভেরার রস মধুর সাথে মিশিয়ে মুখে লাগালে ত্বকের উজ্জ্বলতা ক্রমশ বাড়াতে সাহায্য করে। এতে ত্বকের মৃত কোষকে জীবিত করে এবং ত্বকের কালো দাগ দূর করে। যেহেতু এলোভেরা নতুন কোষ তৈরি করতে সাহায্য করে সেক্ষেত্রে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ে। 

প্রতিদিন সকালে, দুপুরে এবং রাত্রে এলোভেরার রস মধুর সাথে ভালো করে মিশিয়ে মুখে লাগালে দ্রুত ত্বক ফর্সা হতে শুরু করবে। বেশি সময় দিতে না পারলে প্রতিদিন রাত্রে ঘুমানোর আগে ব্যবহার করা যেতে পারে। 

মুখে এলোভেরা ব্যবহারের নিয়ম

মুখের উজ্জ্বলতা বাড়াতে হলে নিয়মিত এলোবেরার রস মুখে লাগাতে হবে। প্রতিদিন সকাল, দুপুর এবং রাতে এলোবেরার রস মুখে লাগালে খুব দ্রুত মুখের উজ্জ্বলতা বাড়বে। তিন বেলা ব্যবহারের সময় না থাকলে প্রতিদিন রাত্রে একবার ব্যবহার করতে পারেন।

এলোবেরা রসের সাথে মধু মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারলে বেশি ভালো হয়। এতে করে দ্রুত কার্যকারীতা পাওয়া যায়। 

তৈলাক্ত ত্বকে এলোভেরার ব্যবহার

অনেকের মুখ এমনি এমনি বেশি পরিমাণে তৈলাক্ত হয়ে যায়। যা তৈলাক্ততার কারণে ত্বকের সৌন্দর্য নষ্ট হওয়ার পাশাপাশি ব্রণ হওয়া সম্ভাবনা বেড়ে যায়। মুখের এ তৈলাক্ততা দূর করতে এলোভেরা অত্যন্ত কার্যকরী। 

প্রতিদিন এলোভেরার রসালো অংশ ঘষে ঘষে ত্বকে লাগালে তৈলাক্ততা কমে যাবে। এছাড়া রসালো অংশ মধুর সাথে মিশিয়ে মুখে ব্যবহার করলে তৈলাক্ততা কমবে। 

এলোভেরা দিয়ে ব্রণ দূর করার উপায়

এলোভেরা ব্রণ দূর করতে কার্যকরী ভূমিকা রাখে। ব্রণ দূর করার জন্য প্রতিদিন এলোভেরার রসালো অংশ মুখে ঘষে ঘষে লাগালে অথবা রসালো অংশ মধু দিয়ে লাগালে দ্রুত ব্রণ দূর করতে সাহায্য করবে। মুখের তৈলাক্ততার কারণে সাধারণত মুখে ব্রণের উপস্থিতি বেড়ে যায়।

যেহেতু এলোভেরা তৈলাক্ততা দূর করতে সাহায্য করে সেক্ষেত্রে মুখে ব্রণের উপস্থিতিও দূর করে। সকাল, দুপুর এবং রাত্রে প্রতিদিন তিন বার মুখে এলোভেরা ব্যবহার করলে দ্রুত মুখের ব্রণ দূর করবে। 

এলোভেরা জেল

বর্তমানে বাজারে অনেক কোম্পানির এলোভেরা জেল পাওয়া যায়। এসব জেল অন্যান্য জেলে তুলনায় অনেক বেশি কার্যকরী হয়ে থাকে। আপনি চাইলে এসব এলোভেরা দিয়ে তৈরি জেল ব্যবহার করতে পারেন। সরাসরি এলোভেরা ব্যবহারের চাইতে জেল ব্যবহার করা বেশি সহজ। তাই অনেকে এলোভেরার এসব জেল বেশি ব্যবহার করতে আগ্রহ প্রকাশ করে।

আপনিও যদি এলোভেরার এসব জেল ব্যবহার করতে আগ্রহী হয়ে থাকেন তাহলে বাজার থেকে নিয়ে এসে ব্যবহার করতে পারেন। নিচে ৬ টি বহুল ব্যবহৃত এলোভেরা জেল এর নাম দেয়া হল –

  • Himalaya Aloe Vera
  • Aarong Earth Aloe Vera
  • Patanjali Saundarya Aloe Vera
  • 99% Aloe Vera Soothing Gel
  • Cathy Doll aloe Vera
  • Parachute Skin Pure Aloe Vera Gel

পেঁয়াজের উপকারিতা ও অপকারিতা (যৌনশক্তি, চুল, রোগ প্রতিরোধ)

এলোভেরা জেল ব্যবহারের নিয়ম

সাধারণত অন্যান্য জেল এর ন্যায় এলোভেরার জেল ব্যবহার করা যায়। এলোভেরার জেল ব্যবহারের তেমন কোনো নির্দিষ্ট নিয়ম নেই। নিচে কিছু ব্যবহার বিধি দেয়া হল –

  1. প্রথমে মুখে হালকা পানি ছিটিয়ে নিন।
  2. এরপর হাতে অল্প পরিমাণ জেল নিন।
  3. তারপর মুখে ভালো করে জেল লাগিয়ে নিন।
  4. সর্বশেষ ২-৩ মিনিট জেল লাগানোর পর মুখ ধুয়ে ফেলুন।

এলোভেরার উপকারিতা এলোভেরা দিয়ে রূপচর্চা এলোভেরা জেল

চুলের জন্য এলোভেরার উপকারিতা

এলোভেরা চুল ঘণ কালো করতে সাহায্য করে। এছাড়া চুলে  গোড়া মজবুত ও নতুন চুল গজাতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান পালন করে। এক কথায় বলতে গেলে চুলের জন্য এলোভেরার গুরুত্ব অনেক বেশি। প্রতিদিন নিয়মিত চুলের গোড়ায় এলোভেরার রসালো অংশ ঘষে ঘষে লাগালে এসব উপকারিতা পাওয়া যায়।

শুধু তাই নয় এলোভেরা মাথার খুশকি দূর করতে সাহায্য করে। যাদের মাথায় অনেক বেশি খুশকি তারা খুশকি দূর করার জন্য এলোভেরা ব্যবহার করতে পারেন। 

এলোভেরার উপকারিতা ও অপকারিতা

আপনারা উপরের আলোচিত বিষয় থেকে এলোভেরার অসংখ্য উপকারি গুণ সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। ‍কিন্তু অসংখ্য উপকারিতার মাঝেও কিছু অপকারিতা রয়েছে। প্রত্যেক জিনিসের উপকারিতার মাঝে কিছু অপকারিতা থাকে যদি সঠিক পর্যায়ে ব্যবহার করতে না পারা যায়। এ পর্যায়ে আলোচনা করবো এলোভেরার সেই অপকারি দিকগুলো সম্পর্কে।

যা সঠিক পর্যায়ে ব্যবহার করলে এলোভেরার উপকারিতা বেশি পাওয়া যাবে এবং ক্ষতিকর দিক সমূহ বর্জন করা সহজ হবে। 

এলোভেরার ক্ষতিকর দিক

এলোভেরার অসংখ্য উপকারিতা থাকলেও এর বেশি ব্যবহার করা যাবে না। অতিরিক্ত ব্যবহারে বিভিন্ন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। নিচে এর ক্ষতিকর ‍দিক সমূহ পয়েন্ট আকারে দেয়া হল –

  • এলোভেরা অতিরিক্ত ব্যবহার করলে এলার্জি জনিত সমস্যা হতে পারে।
  • অতিরিক্ত ব্যবহারে শ্বাস-প্রশ্বাস জনিত অসুবিধা, বুকে ও ঘাড় ব্যথা সহ বিভিন্ন লক্ষণ দেখা দিতে পারে।
  • গর্ভবতী মায়েদের এলোভেরা ব্যবহার করা উচিত নয়। ব্যবহারের পূর্বে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।
  • বেশি ব্যবহারে পাশ্বপ্রতিক্রিয়া হিসেবে ডায়রিয়া, পেটব্যথা ও ডিহাইড্রেশন জনিত সমস্যা হতে পারে।
  • গ্যাস জনিত সমস্যা থাকলে বেশি এলোভেরা ব্যবহার করা যাবে না।
  • চিকিৎসারত অবস্থায় এলোভেরা ব্যবহারে মারাত্বক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হতে পারে।
  • ডায়বেটিস রোগীদের এলোভেরা খাওয়ার পূর্বে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।

কাঁচা রসুনের উপকারিতা, অপকারিতা ও রসুন খাওয়ার নিয়ম

এলোভেরা FAQ

এলোভেরা খেলে কি হয়?
উত্তরঃ এলোভেরা খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃ্দ্ধি পায়, দেহের ওজন নিয়ন্ত্রণ থাকে, দেহের ক্ষতিকর পদার্থ বেরিয়ে যায়, যকৃতের ক্রিয়া শক্তি বাড়ে, নতুন কোষ তৈরি হয় এবং পেটের মেদ কমানো সহ বিভিন্ন উপকারিতা পাওয়া যায়।

এলোভেরা মুখে দিলে কি হয়?
উত্তরঃ এলোভেরা মুখে দিলে ত্বকের মৃত কোষ সজীব হয়, মুখের কালো দাগ দূর করে এবং ত্বকের উজ্জ্বলতা বেড়ে যায়।

শুধু এলোভেরা মাখলে কি হয়?
উত্তরঃ শুধু এলোভেরা মাখলে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি সহ ত্বকের কালো দাগ দূর হয়ে যায়।

চুলে এলোভেরা দিলে কি হয়?
উত্তরঃ চুলে এলোভেরা দিলে চুলের গোড়া শক্ত হয়, খুশকি দূর করে এবং নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে। 

এলোভেরা জেল এর দাম কত?
উত্তরঃ সাধারণত ২০০ থেকে ৫০০ টাকার মধ্যে ভালো মানের এলোভেরা জেল পাওয়া যায়।

সর্বশেষঃ উপরে এলোভেরার উপকারিতা, অপকারিতা ও এর ব্যবহার বিধি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আশা করছি এই আর্টিকেলের সাহায্যে অনেক কিছু জানতে পেরেছেন। আলোচিত আর্টিকেলটি সম্পর্কে আপনার যদি কোনো ধরনের মতামত থাকে তাহলে কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন। এ ধরনের গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেল নিয়মিত পড়তে চাইলে আমাদের সাথেই থাকুন। এছাড়া আমাদের অন্যান্য আর্টিকেলগুলো পড়তে পারেন। ধন্যবাদ।।

আরো পড়ুনঃ

Read more

Leave a Comment